লিভারপুলকে হারিয়ে আর্সেনালের শিরোপা জয়

এফএ কাপ জিতে মৌসুম শেষ করেছিল আর্সেনাল। আর নতুন মৌসুম শুরু করলো কমিউনিটি শিল্ড জিতে। লিভারপুলকে টাইব্রেকারে হারিয়েছে গানাররা। আর টানা দ্বিতীয়বার কমিউনিটি শিল্ডে হারলো অল রেডরা। আর্সেনালের পুরনো মৌসুমের শেষ আর নতুন মৌসুমের শুরুটা হলো ট্রফি জিতে। শিল্ড উচিয়ে তাই উচ্ছাসের সাগরে লন্ডনাররা।

কমিউনিটি শিল্ডে এখন দ্বিতীয় সর্ব্বোচ্চ ১৬ বারের চ্যাম্পিয়ন আর্সেনাল। সবার উপরে ২১ শিরোপা নিয়ে ম্যানচেস্টার উইনাইটেড। লিভারপুল-আর্সেনাল ২৩০ বার মুখোমুখি হলেও পঞ্চমবারের মতো ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে খেলতে নেমেছিলো দুদল। তাও আবার দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে।

ম্যাচের শুরু থেকেই বলের দখলে লিভারপুল। মাত্র ৬ মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতো লিগ চ্যাম্পিয়নরা, যদি ভার্জিল ফন ডাইকের গোল অফ সাইডে বাতিল না হতো। ১২ মিনিটে প্রথম সুযোগেই আর্সেনালকে লিড এনে দেন পিয়েরে এমেরিক অবামেয়াং। বাকায়ো সাকার পাসে ডি বক্সের বাইরে থেকে দৃষ্টিনন্দন শটে স্কোরশিটে নাম তুলেন এই স্ট্রাইকার।

বিপরীতে সালাহ-ফিরমিনোকে নিয়ে সাজানো অলরেডদের আক্রমনভাগ, গোলের সুযোগ নষ্ট করা প্রতিযোগিতায় নেমেছিলো। ৭৩ মিনিটে স্বস্তি ফেরে লিভারপুল শিবিরে। জটলার মাঝে ডি বক্সের ভেতর থেকে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান বদলি হিসেবে নামা মিনামিনো।

এরপর আবারো সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ সাদিও মানে। নির্দিষ্ট সময়ে আর কোন গোল না হলে খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। লিভারপুলের হয়ে সালাহ, ফাবিনিয়ো, মিনামিনো ও কার্টিস জোন্স স্কোর করলেও ব্যর্থ হন রিয়ান ব্রিউস্টার। আর্সেনালের হয়ে লক্ষ্যভেদ করেছেন সবাই। পেনাল্টি শুটআউট হওয়া শেষ ১১ ম্যাচের নয়টিতেই জিতেছে গানাররা।